যৌনতা : স্বাভাবিক, অস্বাভাবিক

আমরা জানি ছয় মাস বয়সের পর থেকে বাচ্চাকে অল্প অল্প করে বাইরের খাবার খেতে দিতে হয় । এতে তার বৃদ্ধি ঘটে। মানুষের যেমন ভাত-মাছ খেতে ইচ্ছা করে। ক্ষুদা লাগে , ঘুম লাগে । ঠিক তেমনি যৌন আকাঙ্খা কিংবা যৌনতা একটি প্রকৃতিক এবং স্বাভাবিক বিষয়। একজন পূর্ণ বয়স্ক নারী বা পুরুষের কাম ইচ্ছা না থাকায় বরং রোগ।

যৌনতা কয় ধরনের?

আমরা সাধারণ ভাবেই এটাকে দুইভাগে ভাগ করে ফেলতে পারি স্বাভাবিক যৌনতা এবং বিকৃত যৌনতা। স্বাভাবিক যৌনতা নিয়ে আগেই বলেছি । এটাকে এড়িয়ে যাওয়া কোনো মানুষের পক্ষেই সম্ভব না। যদি কেউ পারে তবে সে অসুস্থ।

বিকৃত যৌনতা

আমরা মূলত এটা নিয়েই আলোচনা করব। কারণ এগুলো সবই আস্বাভাবিক!

বিকৃত যৌনতা এর প্রকারভেদ:

জুফিলেস

পাকিস্তানের ঘটনা কারোর মনে আছে কিনা! ছাগলকে ধর্ষণের স্বীকার হতে হয়েছিল। পশু-পাখির প্রতি যৌন আকর্ষণ কে জুফিলেস বলা হয়। এটা অবশ্যই একটা মানূষের স্বাভাবিক যৌনতা হতে পারে না।

ভয়েরিজম

লুকিয়ে অন্যের যৌন সঙ্গম দেখা। এ ধরনের মানুষেরা লুকিয়ে অন্যের সঙ্গম দেখতে পছন্দ করে। এতেই তারা যৌনতার সুখ লাভ করে।

নেক্রফিলিয়া

এ ধরনের মানুষেরা কঙ্কালের প্রতি যৌন আকর্ষণ অনুভব করে। খুব অবাক লাগলেও এটা সত্যি!

সেলিব্রিফিলিয়া

সেলিব্রেটি নায়ক নায়িকার প্রতি যৌন কল্পনা । সেলিব্রেটিদের দেখে যৌনতা অনুভব করা এবং মনে মনে তাদের সাথে যৌন কল্পনা করে এই ধরনের ব্যক্তিরা।

ইনসেস্ট

পরিবার-পরিজন এবং নিকট আত্মীয়ের সাথে যৌন মিলনকে ইনসেস্ট (Incest) বলে। যেমন— বাবা মেয়ের সঙ্গে যৌনতা, চাচা ভাইঝির সাথে যৌনতা ইত্যাদি। এ ধরনের যৌনতাও বিকৃত যৌনতার অংশ।

স্যাডিজম

এই যৌনতার লোকজন সেক্স করার সময় অপর পক্ষকে ব্যথা দিতে ভালোবাসে।

ম্যাসোকিজম

এটা স্যাডিজমের উল্টা । এরা ব্যথা পেথে পছন্দ করে । এটা পুরোপুরি রিস্কি । এরা মানসিক ভাবে অসুস্থই বলা চলে।

পেডোফেলিয়া

এই অসম্ভব বিকৃত যৌন রুচিতে যারা আক্রান্ত তারা তাদের যৌন আকাঙ্খা পূরণের জন্য বাচ্চাদেরকে পছন্দ করে। বাংলাদেশে এমন বহু ঘটনা দেখতে পাওয়া যায়।

ফেটিসিজম

এই ধরনের রুচিতে যারা অভ্যস্ত তারা সাধারণত জড় বস্তুর প্রতি যৌন আকৃষ্ট হয়। যেমন- আন্ডারওয়ার, মেয়েদের পোশাক নিয়ে খেলা করা ইত্যাদি।

ফ্রটারিজম

এই ধরনের যৌনতার লোকজন বোধহয় ঢাকা শহরে সবচেয়ে বেশি। এই ঘৃণ্য রুচিতে আক্রান্ত ব্যক্তিরা সাধারণত অপরিচিত মানুষের প্রতি যৌন আকৃষ্ট হয়ে মানুষের শরীরে অনুমতি ছাড়াই অশ্লীল ও ইচ্ছেকৃত ভাবে হাত দিয়ে থাকা, গা ঘেঁষাঘেঁষি করে দাঁড়ানো, প্রভৃতি ঘটনার সাথে জড়িত থাকে। পুরুষদের ক্ষেত্রেই এটা বেশি দেখা যায়।

Facebook Comments