মস্তিস্কের কোষ এখন থেকে স্মার্টফোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে?

মস্তিস্কের কোষ এখন থেকে স্মার্টফোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে?
 

বিজ্ঞানীদের একটি দল এমন একটি যন্ত্র আবিষ্কার করেছে যা স্মার্টফোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রিত একটি ক্ষুদ্র মস্তিষ্কের ইমপ্লান্ট ব্যবহার করে নিউরাল সার্কিটগুলি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। ডিভাইসটি পার্কিনসনস, অ্যালজাইমার্স, আসক্তি, হতাশা এবং ব্যথার মতো মস্তিষ্কের অসুস্থতা উদ্ঘাটনের প্রচেষ্টা দ্রুততর করতে পারে। মস্তিস্কের কোষ নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে রোগের উপশমও পাবে রোগীরা। 

মস্তিস্কের কোষ নিয়ন্ত্রণে গবেষণা:

এই গবেষণাটি সম্প্রতি, নেচার বায়োমেডিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ প্রকাশিত হয়েছে। গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে, এই যন্ত্রটি পার্কিনসনস, অ্যালজাইমার্স, আসক্তি, হতাশা এবং ব্যথার মতো মস্তিষ্ক থেকে নিয়ন্ত্রিত অসুখ নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে পারবে। এটা করা হবে স্মার্টফোন ব্যবহার করে মস্তিস্কের কোষ  এর উপর নিয়ন্ত্রণ এনে।

ডিভাইসটি লেগো-এর মতো প্রতিস্থাপনযোগ্য ওষুধের কার্তুজ এবং শক্তিশালী ব্লুটুথ লো-এনার্জি ব্যবহার করে। এ ছাড়া ওষুধ এবং আলো ব্যবহার করে নির্দিষ্ট নিউরনগুলোর উপর কাজ করতে পারে।

কোরিয়া অ্যাডভান্সড ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (কেএআইএসটি) এবং কলোরাডো বোল্ডার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক  রাজা কাজী বলেছেন, ‘ওয়্যারলেস নিউরাল ডিভাইস দীর্ঘস্থায়ী রাসায়নিক এবং অপটিক্যাল নিউরোমোডুলেশন সক্ষম করে যা এর আগে কখনো পাওয়া যায়নি!’

দীর্ঘস্থায়ী ওয়্যারলেস  ড্রাগ সরবরাহের জন্য, বিজ্ঞানীদেরকে ক্লান্তি এবং ওষুধের বাষ্পীভবনের জটিল চ্যালেঞ্জটি সমাধান করতে হয়েছিল। কোরিয়া অ্যাডভান্সড ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এবং সিয়াটেলের ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনের গবেষকরা একটি প্রতিস্থাপনযোগ্য ড্রাগ কার্টিজসহ একটি নিউরাল ডিভাইস উদ্ভাবনের জন্য সহযোগিতা করেছিলেন, যা নিউরোলজিস্টদের ওষুধের সন্ধান না করেই কয়েক মাস ধরে একই মস্তিষ্কের সার্কিট রিড করতে সাহায্য করতে পারে।

এই ওয়্যারলেস নিউরাল ডিভাইসগুলি ব্যবহার করে, গবেষকরা সহজেই সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রাণি স্টাডি সেটআপ করতে পারবেন, যেখানে একটি প্রাণির আচরণ হালকা অথবা ড্রাগ সরবরাহের শর্তাধীন ট্রিগার দ্বারা অন্যান্য প্রাণির আচরণকে ইতিবাচক বা নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করতে পারে।

কেএআইএসটি-র বৈদ্যুতিক প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক জে-ওওং জং বলেন, ‘এই চমকপ্রদ ডিভাইসটি উন্নত ইলেকট্রনিক্স ডিজাইন এবং শক্তিশালী মাইক্রো এবং ন্যানোস্কেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ফল! ক্লিনিকাল অ্যাপ্লিকেশনগুলোর জন্য মস্তিষ্কের ইমপ্ল্যান্ট তৈরি করার জন্য আমরা এই প্রযুক্তিটি আরও বিকাশে ঘটাতে আগ্রহী!’

ওয়াশিংটন স্কুল অফ মেডিসিন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যানাস্থেসিওলজি, ব্যথার ওষুধ এবং ফার্মাকোলজির অধ্যাপক মাইকেল ব্রুকাস বলেন, ‘এই প্রযুক্তি গবেষকদের বিভিন্ন উপায়ে সহায়তা করবে। এটি আমাদের আচরণের নিউরাল সার্কিটের ভিত্তিতে এবং মস্তিষ্কের সুরের বিভিন্ন ধরনের আচরণের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট স্নায়ুচোষককে আরও ভালোভাবে বিচ্ছিন্ন করার অনুমতি দেয়। আমরা জটিল ফার্মাকোলজিকাল স্টাডির জন্য ডিভাইসটি ব্যবহার করতে আগ্রহী, যা আমাদের ব্যথা, আসক্তি এবং আবেগজনিত ব্যাধিগুলির জন্য নতুন চিকিৎসার উন্নতি করতে সহায়তা করতে পারে।’

কেএআইএসটি-র জে-ওওং গ্রুপের গবেষকরা পরিধানযোগ্য ও রোপনযোগ্য ডিভাইসের জন্য নরম ইলেকট্রনিক্স তৈরি করতেন এবং ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্রুকাস ল্যাব-এর নিউরোসায়েন্টিস্টরা স্ট্রেস, ডিপ্রেশন, আসক্তি, ব্যথা এবং অন্যান্য স্নায়ুবিক রোগকে নিয়ন্ত্রণে ব্রেন সার্কিট রিড করতেন। প্রায় ৩ বছর সময় ধরে চলছে এই গবেষণা।

এই গবেষণাটি, National Research Foundation of Korea, U.S. National Institute of Health, National Institute on Drug Abuse, and Mallinckrodt Professorship এই সংস্থাগুলোর অনুদানে সংঘটিত হয়েছে!

সোর্স:

  1. University of Washington Health Sciences
  2. Nature Biomedical Engineering

আরও পড়ুন: গুগল সার্চ ইঞ্জিন প্রতিদ্বন্দ্বীদের অ্যান্ড্রয়েডে ‘ডিফল্ট’ সুবিধা দিতে রাজি!

Facebook Comments
পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন: