ফেসবুক মার্কেটিং ফ্রি কোর্স!

ফেসবুক মার্কেটিং ফ্রি কোর্স!
 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর হচ্ছে স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিং। আর স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ের কথা চিন্তা করতেই প্রথমে চলে আসে ফেসবুক। হ্যাঁ, ফেসবুক মার্কেটিং হলো স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মোস্ট পাওয়ারফুল সেক্টর। হবেই না বা কেন? প্রতিদিন দেড় বিলিয়নেরও বেশি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করে! দেড় বিলিয়ন!!! টার্গেটেড অডিয়েন্স থেকে শুরু করে, ওয়েবসাইট ভিজিটর, লিডস, সেলস সবকিছুই পাওয়া যেতে পারে ফেসবুক থেকে। তাই দিন দিন সার বিশ্বে ব্যাপক হারে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ফেসবুক মার্কেটিং। অথচ বাংলাদেশের ৯৯% ফেসবুক ইউজার ফেসবুককে পুরোপুরি ব্যবহার করতে জানে না। সাধারণ ইউজাররা সর্বোচ্চ ৫% ব্যবহার করতে পারে ধরতে গেলে। আর কথিত স্প্যামাররা বড়জোর ১০%। আদতে, আমরা ফেসবুকের যে ইন্টারফেস ইউজ করি তা মূল ফেসবুকের মাত্র ২০% বলা যায়। ফেসবুকের বাকি ৮০% রয়েছে বিভিন্ন সাব ডোমেইনে! তো, এই পোস্টে আমরা ফেসবুক মার্কেটিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানব! এ ছাড়াও কোথা থেকে ফ্রি ফেসবুক মার্কেটিং কোর্স করবেন, সেটাও দেখব!

কেন ফেসবুক মার্কেটিং শিখবেন?

মূল কথায় ফিরে আসা যাক, ২০১৯ সালে ফেসবুকের শুধু অ্যাডভার্টাইজিং রেভেনিউ ছিল প্রায় ৪০ মিলিয়ন ডলার! ফেসবুক তার রেভেনিউ আবার ইউজারদের (কন্টেন্ট ক্রিয়েটর, ডেভেলপার, পাবলিশার) সাথে শেয়ার করে। তো, সেই শেয়ার সহ ধরলে অ্যামাউন্টটা প্রায় ১ বিলিয়ন ডলার!
বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বড় মার্কেটপ্লেসগুলোর মধ্যে ফেসবুক অন্যতম। ফেসবুককে ঘিরে যে এফ-কমার্স গড়ে উঠেছে, সেটার সাইজ এস্টিমেট করতে গেলে হিমশিম খেতে হবে। কারণ এই মার্কেটে বিভিন্ন ব্র্যান্ড যদি ১-৩ বিলিয়ন ডলার ইনভেস্ট করে, তাদের যে রেভেনিউ আসার সম্ভাবনা, সেটা কত হতে পারে ধারণা করুন!
 
আরেকটা হিসেব দিই! ‘ফেসবুক অডিয়েন্স নেটওয়ার্ক’ যে প্লাটফর্ম আছে, যেটার মাধ্যমে নিউজ পাবলিশার, ব্লগ রাইটার, কন্টেন্ট ক্রিয়েটর, ওয়েব ও গেম ডেভেলপাররা আয় করে থাকে, সেটাতে গত ১ বছরের পে আউট প্রায় ১.৫ বিলিয়ন ডলার!
 
এখানেই শেষ নয়! ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসেও ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ে সবচেয়ে বেশি রাজত্ব করছে ফেসবুক মার্কেটিং। যারা ফেসবুক মার্কেটিং এক্সপার্ট তাদের বিভিন্ন ছোট-বড় দেশি-বিদেশি কোম্পানি হায়ার করে বেশ ভালো বেতনে। ফাইভার, আপওয়ার্কের মতো মার্কেটপ্লেসে ফেসবুক মার্কেটিং / স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এক্সপার্ট অথবা স্যোশাল ম্যানেজার হিসেবে, মান্থলি বেসিসে কাজ পাওয়া যায় ৫০০-২০০০ ডলার বেতনে! ফেসবুক মার্কেটিংয়েও আবার শুধু একটা কাজ না! পেজ ম্যানেজার বা অ্যাসিস্ট্যান্ট, অ্যাড ম্যানেজার, সেলস/লিডস জেনেরেশন, ইন্সটাগ্রাম বিজনেস ম্যানেজার, হোয়াটসআপ বিজনেস ম্যানেজার, ইত্যাদি কাজের অভাব নাই!
 
আবার নিজে এন্টারপ্রিনিয়ার হিসেবে স্বাধীন বিজনেজও শুরু করে দেওয়া যায় ফেসবুকে। সারা পৃথিবী জুড়ে লাখ লাখ সাকসেস্ফুল ফেসবুক শপ রয়েছে। আর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে ফেসবুকের উপর ডিপেন্ডেড ব্যবসার সংখ্যা ভুড়িভুড়ি! সুতরাং বুঝতেই পারছেন, কেন ফেসবুক মার্কেটিং শেখাটা জরুরি! 

কীভাবে ফ্রি ফেসবুক মার্কেটিং কোর্স করবেন?

ফেসবুক মার্কেট প্লেসটার রেঞ্জ কত বড় এখন হয়তো কিছুটা বুঝতে পারছেন! তো এবার সবার মনে প্রশ্ন থাকতে পারে, ফেসবুকে কাজ করব কীভাবে, কিছুই তো পারি না? ফেসবুক মার্কেটিং এক্সপার্ট হতে কী করা লাগবে? এটার সমাধানও আছে ফেসবুকে। ফেসবুক ব্লু প্রিন্ট ই-লার্নিং কোর্স! এটা ফেসবুক থেকেই প্রোডাইড করা অনলাইন কোর্স, যেখান থেকে ভিডিও টিউটোরিয়াল ও টেক্সট কন্টেন্টের মাধ্যমে ফেসবুক মার্কেটিং এ টু জেড শেখা যায়! ফেসবুক ব্লু প্রিন্ট প্লাটফর্মে ১০০+ ব্যাসিক টু অ্যাডভান্স কোর্স রয়েছে! সবগুলোই ফ্রি! (অবশ্য সব কোর্স শেষ করে আপনি যদি সার্টিফিকেট নিতে চান, তাহলে টাকা দিয়ে এক্সাম দিতে হবে! অবশ্য এই সার্টিফিকেট না নিলেও আপনি কাজ করতে পারবেন!)। তবে এই কোর্সগুলো শেখার জন্য আপনাকে ইংরেজিতে এক্সপার্ট হতে হবে। যারা ইংরেজি ভালো পারেন না, তাদের জন্য আমরা বাংলা আর্টিকেল আকারে ফ্রি ফেসবুক মার্কেটিং কোর্স গুলো পাব্লিশ করব। আর্টিকেলগুলো সবার আগে পেতে চাইলে, আপনার ইমেইলের মাধ্যমে বিজ্ঞান নিউজে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন!  
 
 
 
 
বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার ফ্রিল্যান্সার এই সেক্টরে কাজ করছে, ফেসবুকে ক্যারিয়ার গড়ছে, বর্তমানে! অন্য দিকে, বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত ও অদ্ভুত দেশের (নাম বললে চাকরি থাকবে না!) ইউজাররা ফেসবুকে স্প্যামিং করে- দু চারটা সিকিউরিটিবিহীন আইডি নষ্ট করতে পেরে নিজেকে ফেসবুকের কিং ভাবে, অ্যাবাউটে লিখে রাখে- ওয়ার্ক এট মাফিয়া গ্রুপ/অ্যানোনিমাস গ্রুপ/স্প্যামিং জোন ব্লা ব্লা ব্লা; আরেক দল ইউজার সারাক্ষণ গুজব ছড়ানো নিয়ে ব্যস্ত থাকে- সেদিনও একজন এক সেতুতে কল্লা চাওয়ার ভিডিও ম্যাসেজ করল; আরেক দলের জন্য ফেসবুকটা শুধু ফটো অ্যালবাম- গাল বাঁকা, নাক বাঁকা, উইৎ-চিৎ হওয়া, আটা ময়দা মাখা সেলফিতে ভরপুর তাদের আইডি; আরেক দল আছে যারা নিজেদের এলিট শ্রেণির ফেসবুক সেলেব্রেটি ভাবে- এরা প্রায়শ বিভিন্ন বিষয়ে জ্ঞানী জ্ঞানী পোস্ট দেয়, কিন্রু লাইভ মাঠে কখনো এদের পাওয়া যায় না এবং এদের সারাদিনের ১৪ ঘণ্টা কাটে পোস্টে কতটা লাইক-কমেন্ট পড়ল সেটা গুনতে গুনতে!
 
যাই হোক, নতুন যারা ডিজিটাল মার্কেটিং সেক্টরে ফ্রিল্যান্সিং করতে চান, তাদের জন্য মোটামুটি সহজ-ডিমান্ডেবল স্কিল সম্বন্ধে জানালাম এবং শেখার প্রসেস ও রিসোর্সও দিলাম! যাদের আগ্রহ আছে, আশা করি কাজে লাগাবেন! ধন্যবাদ।

বোনাস:

আরও পড়ুন: নিজের ওয়েবসাইট থেকে কীভাবে বড় অঙ্কের টাকা আয় করবেন?

যেকোনো ধরনের ডিজিটাল মার্কেটিং (এসইও, কন্টেন্ট মার্কেটিং, গুগল অ্যাডস, ফেসবুক মার্কেটিং, টুইটার-ইন্সটাগ্রাম-লিংকডইন মার্কেটিং, লিড জেনেরেশন ইত্যাদি।) ও ব্লগ সাইট মেকিং সার্ভিস পেতে: আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। 

 

Facebook Comments
পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন: