ওয়ার্ডপ্রেস শিখি – পর্ব-১

ওয়ার্ডপ্রেস শিখি – পর্ব-১
 

এখন প্রযুক্তি দৌড়ে সবখানে বাড়ছে ওয়েবসাইট এর ব্যবহার। এমন কোন জায়গা নেই যেখানে একটি ওয়েবসাইট এর প্রয়োজনীয়তা নেই। আর বিশ্বের প্রায় ৯০ ভাগ সাইট ওয়ার্ডপ্রেস এ করা। সেক্ষেত্রে ওয়ার্ডপ্রেস হতে পারে আপনার ক্যারিয়ার।

ওয়ার্ডপ্রেস কি?

ওয়ায়র্ডপ্রেস হচ্ছে একটি CMS অর্থাৎ Content Management System। আমরা যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরী করে সেটা ইন্টারনেট জগতে সবার সামনে উপস্থান করতে যায় তাহলে যে সিস্টেমই আমাদের সাহায্য করে এটাই হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস। এখন প্রায় সব ধরণের সাইট তৈরী করা যায় ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে। ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress)  কে সংক্ষেপে WP বলা হয়ে থাকে । WordPress Free এবং Open Source হওয়ায় চাইলে এর সবকিছুই নিজের মতো করে সাজিয়ে নেয়া য়ায় ।

কেন ওয়ার্ডপ্রেস ইউজ করা সবচেয়ে ভালো? 

১. সর্বনিম্ন নিজের একটা ডোমেইন আর হোস্টিং থাকলেই আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ইউজ করতে পারবেন।

২. মূলত ওয়েবসাইট তৈরি করতে HTML, PHP, CSS – এই কোডিং গুলো লাগে। যদি আপনি এই কোডিং এর ‘ক’ ও না জানেন, তারপরও আপনি অতি অসাধারন একটা ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন এই ওয়ার্ডপ্রেস ইউজ করে।

৩. গুগলে সার্চ দিলে আপনি লাখের উপরে ওয়ার্ডপ্রেস ডিজাইন পাবেন, যেগুলো আপনি খুব সহজে আপনার নিজের ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে ব্যাবহার করতে পারেন।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখি - পর্ব-১

কোথা থেকে শুরু করবেন?

আমাদের বিজ্ঞাননিউজ  একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইট । আমরা এখানে থিম আপলোড করেছি এর পর থিমটা সাজিয়ে কনটেন্ট অর্থাৎ এই লেখাটি লিখছি যা আপনারা পড়তে পারছেন। যদি একটা ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল দিতে হয় তবে আমাদের একটি জায়গা প্রয়োজন হবে যেখানে আমরা ওয়ার্ডপ্রেসটি ইন্সটল করবো। এক্ষেত্রে দুইটা পদ্ধতি অবলম্বন করা যায়।

১. একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে নেয়া যায়।

২. নিজের কম্পিউটারকেই হোস্টিং হিসেবে ব্যহার করা যায়।

আমরা এই টিউটোরিয়ালে দেখাবো ডোমেইন হোস্টিং কিনে কিভাবে আপনি করবেন। কারণ ওয়ার্ডপ্রেস লাইভ করতে হলে এটাই প্রয়োজন।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখি - পর্ব-১
c panel

বাংলাদেশে অনেক কোম্পানি আছে যারা ডোমাইন হোস্টিং সেবা দিয়ে থাকে। তারমধ্যে আমার পছন্দের একটা এক্সনহোস্ট । প্রথমে আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী একটা নাম সিলেক্ট করবেন । তারপর পছন্দ অনুযায়ি ডোমেইন+ হোস্টিং কিনে ফেলবেন। তারা আপনাকে সিপ্যনেল লগইন এর সকল তথ্য দিয়ে দেবে।

বিশেষ কথাঃ আপনার যদি সত্যিকার অর্থেই সাইট বানানোর ইচ্ছা থাকে তবে সেই ক্ষেত্রে অবশ্যই পেইড ডোমেইন এবং হোস্টিং ইউজ করবেন, কোন ভাবেই এই সব ফ্রী ইউজ করতে যাবেন না; ফ্রী ইউজ করবেন শুধু মাত্র প্র্যাকটিসের জন্য।

পর্ব- ২ 

 

Facebook Comments
পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন: